কুড়িগ্রাম – রাজিবপুরে কাজের মেয়েকে ধর্ষণ করলেন আওয়ামীলীগ নেতা

0
27

ডেস্ক রিপোর্ট – আলোকিত স্বদেশ

নিজের বাসার কাজের মেয়েকে ধর্ষণ করলেন আওয়ামী লীগ নেতা! ঘটনাটি ঘটেছে কুড়িগ্রাম জেলার রাজীবপুর ইউনিয়নে।

প্রতিবেদন সূত্রে জানা যায়-কুড়িগ্রাম জেলার রাজিবপুর উপজেলার ” রাজিবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি সিরাজ উদ-দৌলা গত ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে তার নিজস্ব বাসায় গৃহপরিচারিকার কাজের জন্য ওই কিশোরী কে (১৭) কে নিয়ে আসেন।

আর তারপর থেকে গৃহপরিচারিকা কিশোরীর দিকে কুনজর দেয় নারী লিপ্সু সিরাজ উদ-দৌলা। প্রায় সময় তার স্ত্রী বাসায় না থাকলে তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করতেন। সিরাজ উদ-দৌলার বাবার নাম মৃত এফাজ উদ্দিন কারিগর।

খবর নিয়ে জানা যায়-গৃপরিচারিকার কিশোরীর গ্রামের বাড়ি কুড়িগ্রাম জেলার রাজিবপুর উপজেলার বড়াইডাঙ্গা গ্রামে। এলাকাবাসী ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায় লম্পট সিরাজ উদ-দৌলা দীর্ঘ দিন যাবত গৃহপরিচারিকা কিশোরী কে ধর্ষণ করে আসছেন। এক পর্যায়ে মেয়েটি ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন।

পরে ধর্ষণের বিষয়টি এলাকাবাসীর মধ্যে জানা জানি হলে ধর্ষক সিরাজ উদ-দৌলা কিশোরীকে ধর্ষণের বিষয় টি গোপন রাখতে বলেন। আর যদি কাউকে ধর্ষণের বিষয় টি জানানো হয় তাহলে কিশোরী ও তার মাকে হত্যা করবে বলে হুমকি দেন।

সিরাজ উদ-দৌলার এই হিংস্র নরপশু কর্মকান্ড দেখে সোমবার বিকেলে পালিয়ে রাজিবপুর থানায় গিয়ে ধর্ষণের বিষয় টি নিজেই বাদী হয়ে লিখিতভাবে অভিযোগ করেন ওই কিশোরী । এদিকে ধর্ষক সিরাজ উদ-দৌলা গৃহপরিচারিকা কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগটি সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে জানিয়েছেন।

সিরাজ উদ-দৌলা বলেন আমাকে ফাঁসানোর জন্য এমন মিথ্যে অপবাদ দেয়া হয়েছে। ধর্ষিত কিশোরীর ধর্ষনের আলামত সংগ্রহের পরীক্ষার জন্য কুড়িগ্রাম পুলিশ সুপারের নিকট পাঠানো হয়।

কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার আলোকিত স্বদেশকে জানান-যেহেতু কিশোরী নিজেই বাদী হয়ে ধর্ষণ মামলাটি দায়ের করেন সেহেতু আমরা ধর্ষণের রিপোর্ট পাওয়া মাএই আসামী বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here