রাজারহাটে পূর্ব বিরোধের জের ধরে ছাত্রকে বিদ্যালয়ে ভর্তি করালেন না প্রধান শিক্ষক

0
55

ডেস্ক রিপোর্ট – আলোকিত স্বদেশ 

কুড়িগ্রাম-রাজারহাটে পূর্ব বিরোধের জেরে ছাত্রকে বিদ্যালয়ে ভর্তি করালেন না প্রধান শিক্ষক ! এলাকাবাসীর ক্ষোভের সৃষ্টি । ঘটনাটি ঘটেছে কুড়িগ্রাম জেলার রাজার হাট উপজেলার ৪ নং ওয়ার্ডের সুন্দরগ্রাম পুটিকাটা এলাকায়।

প্রতিবেদন সূত্রে জানা যায়- সুন্দরগ্রাম পুটিকাটা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. রফিকুল ইসলাম পূর্ব বিরোধের জের ধরে মো. আসিক রহমান (১১) নামের এক স্কুল ছাত্রকে ষষ্ঠ শ্রেণীতে ভর্তি করাননি। এমন খবর পেয়ে আমরা সরজমিনে গিয়ে ছাত্র মো. আসিক রহমানের পিতা মো. আবুল হোসেনের নিকট বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি জানান- তার ছেলেকে ভর্তির জন্য বেশ কিছু দিন ধরে বিদ্যালয় প্রধানের সঙ্গে যোগাযোগ করতেছেন এমনকি ছেলেকে ষষ্ঠ শ্রেণীতে ভর্তির জন্য ঐ বিদ্যালয় থেকে ভর্তি ফরম ও সংগ্রহ করেন।

কিন্তু বিদ্যালয়টির ম্যানেজিং কমিটির বিতর্কিত সভাপতি মনিরুজ্জামান বুলুর যোগসাজশে প্রধান শিক্ষক মো. রফিকুল ইসলাম মো. আসিক রহমান কে ভর্তি করাবেন না বলে জানিয়ে দেন। ছাত্র আসিক রহমানের বাবা আবুল হোসেন আমাদেরকে আরো জানান – এরআগে এই বিদ্যালয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে ম্যানেজিং কমিটি গঠন ও অবৈধভাবে প্রধান শিক্ষক নিয়োগের বিষয় নিয়ে নিজে বাদী হয়ে রাজারহাট সহকারী জজ আদালত একটি মামলা দায়ের করেন, যা বর্তমানে বিচারাধীন অবস্থায় রয়েছে। তাই সেই জের ধরে প্রধান শিক্ষক মো রফিকুল ইসলাম আমার ছেলেকে তার বিদ্যালয়ে ভর্তি নিচ্ছেন না।

অভিভাবক আবুল হোসেন আরো বলেন- আমি আমার ছেলেকে বিদ্যালয়ে ভর্তির বিষয়টি নিয়ে রাজারহাট উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জনাব আশরাফ-উজ-জ্জামানের নিকট লিখিত অভিযোগ জানিয়েছি এবং প্রয়োজনে রাজারহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূরে তাসনিম ও রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ রাজু সরকারের নিকটও লিখিতভাবে অভিযোগ জানাবো।

পরে আমাদেরকে দেয়া তথ্য ও অভিযোগ অনুযায়ী দেখা যায় গত একমাস আগে আবুল হোসেন তার ছেলে আসিক রহমানকে ষষ্ঠ শ্রেনীতে ভর্তির জন্য সুন্দরগ্রাম পুটিকাটা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ভর্তি ফরর্ম উত্তোলন করেন। এরপর ভর্তি ফরর্মের সকল তথ্য পূরণ করে বিদ্যালয়ে জমা দিতে গেলে বিভিন্ন টালবাহানা শুরু করেন।

এরপর গত ২২/০১/২০২১ ইং তারিখে ছাত্র আসিক রহমানের ভর্তি ফরর্ম জমা দিতে গেলে অভিভাবক আবুল হোসেনকে প্রধান শিক্ষক মো রফিকুল ইসলাম জানান- আপনার ছেলেকে ভর্তি করে নেয়া হবে কিন্তু এখন না। সময় হলে ডেকে নিয়ে ভর্তি করাবেন বলে আশ্বাস দেন প্রধান শিক্ষক।

সর্বশেষ গত ৪/০৩/২০২১ ইং তারিখে অভিভাবক আবুল হোসেন তার ছেলেকে ভর্তি করাতে আবারো সুন্দরগ্রাম পুটিকাটা উচ্চ বিদ্যালয়ে আসেন। এসময় বিদ্যালয়টির সহকারী শিক্ষক গোবিন্দ কুমার আবুল হোসেনকে বলেন তার ছেলে আসিক রহমানকে ভর্তি করাতে নিষেধ করেছেন বিদ্যালয়টির বিতর্কিত প্রধান শিক্ষক মো রফিকুল ইসলাম। বর্তমানে এই বিষয়টি নিয়ে ঐ এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। সেই সাথে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মনিরুজ্জামান বুলু ও প্রধান শিক্ষক মো রফিকুল ইসলামকে নিয়ে বেশ সমালোচনার ঝড় সৃষ্টি হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here